শিক্ষা তথ্য : সুনামগঞ্জ জেলার সাক্ষরতার হার ৪৯.৭৫%। সুনামগঞ্জ জেলায় শিক্ষার আলো ছড়িয়ে দেওয়ার জন্য জেলায় অনেক শিক্ষা প্রতিষ্ঠান রয়েছে। 

উল্লেখযোগ্য শিক্ষা প্রতিষ্ঠান সমূহ:

  • সুনামগঞ্জ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় (প্রস্তাবিত)” দেশের ৪১তম সরকারি বিশ্ববিদ্যালয়
  • সুনামগঞ্জ মেডিকেল কলেজ এন্ড হাসপাতাল, সুনামগঞ্জ
  • সুনামগঞ্জ সরকারি কলেজ, সুনামগঞ্জ
  • সুনামগঞ্জ সরকারি মহিলা কলেজ, সুনামগঞ্জ
  • সুনামগঞ্জ টেক্সটাইল ইঞ্জিনিয়ারিং ইনস্টিটিউট
  • দিগেন্দ্র বর্মন সরকারি কলেজ
  • জামালগঞ্জ সরকারি কলেজ
  • ছাতক সরকারি কলেজ
  • দিরাই সরকারি কলেজ
  • ধর্মপাশা সরকারি কলেজ
  • দোয়ারাবাজার সরকারি কলেজ
  • জগন্নাথপুর সরকারি কলেজ
  • শাল্লা সরকারি কলেজ
  • বাদাঘাট সরকারি কলেজ
  • সরকারি জুবিলী উচ্চ বিদ্যালয়, সুনামগঞ্জ
  • সরকারি এস.সি. বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়, সুনামগঞ্জ
  • এইচ.এম.পি উচ্চ বিদ্যালয়, সুনামগঞ্জ
  • সুনামগঞ্জ উচ্চ বালিকা বিদ্যালয়, সুনামগঞ্জ
  • নারায়ণতলা মিশন উচ্চ বিদ্যালয়, সুনামগঞ্জ
  • সুনামগঞ্জ টেকনিক্যাল স্কুল এন্ড কলেজ, সুনামগঞ্জ
  • তাহিরপুর সরকারী উচ্চ বিদ্যালয়

সুনামগঞ্জ সরকারি কলেজ: সুনামগঞ্জের একটি ঐতিহ্যবাহী শিক্ষা প্রতিষ্ঠান । এই কলেজটি সুনামগঞ্জের শিক্ষার্থীদের স্নাতক ও স্নাতকোত্তর প্রর্যায়ে শিক্ষা গ্রহণের জন্য একমাত্র শিক্ষা প্রতিষ্ঠান । আধুনিক সুযোগ সুবিধা সহ শ্রেণীকক্ষ, গবেষণাগার, গ্রন্থাগার এবং সাধারণ কক্ষ রয়েছে। ১৯৪৪ সালে সুনামগঞ্জ সরকারি কলেজ প্রতিষ্ঠিত হয় । এই কলেজটি সুনামগঞ্জ একটি ঐতিহ্যবাহী শিক্ষা প্রতিষ্ঠান । ২০০১ সালে অনার্স কোর্স চালু হয় । ১৯৫৯ সালে পুকুর খোদাই শুরু হয়। কলেজ টিনশেড একাডেমিক ভবনের উদ্বোধন হয় ১৯৬০ সালের ১৪মার্চ। ১৯৬১ সালে ২৮শে আগস্ট নতুন ভবনে ক্লাস শুরু হয়। ল্যাবরেটরি স্থানান্তরিত হতে বেশ সময় লেগেছিল। তাই ঐ সময় বিজ্ঞান বিভাগের শিক্ষকদের দুই স্থানেই ক্লাস নিতে হতো। ১৯৬২ সালে পুরাতন বিজ্ঞান ভবনের ভিত্তির কাজ শুরু হয় এবং ১৯৬৩ সালে পুরাতন বিজ্ঞান ভবনে কার্যক্রম শুরু হয় । ১৯৬৭ সালের দিকে পূর্ব দিকের টিনশেড অংশ তৈরি হয়। ১৯৬৭ সালে বি.এস-সি ও বি.কম কোর্স চালু করা হয়। অবশেষে ১৯৮০ সালের ৩রা মার্চ কলেজটি জাতীয়কৃত করা হয়। জাতীয় করণকালীন সময়ে তৎকালীন কলেজ গভর্ণিং বডি কর্তৃক ১৪/০৫/১৯৮০খ্রিঃ তারিখে সম্পাদিত ৮৫৮৫/১৯৮০নং দানকৃত দলিলের মাধ্যমে ২৫.৬৫ একর ভূমি সুনামগঞ্জ সরকারি কলেজকে প্রদান করা হয়। ১৯৯২-৯৩ সালে পুরাতন বিজ্ঞান ভবনের পেছনে ফ্যাসিলিটিজ বিভাগের তত্ত্বাবধানে একটি দ্বিতল একাডেমিক ভবন তৈরি হয় যা পরবর্তীতে অনার্স ভবনে রূপান্তরিত হয়েছে। ১৯৯৪-৯৫ সনে কলেজের উত্তর-পূর্ব কোণে প্রস্তাবিত স্টাফ কোয়ার্টার এর পার্শ্বে একটি নতুন পুকুর খনন করা হয়। ১৯৯৩-৯৪ সনে নির্মিত হয় নতুন দ্বিতল বিজ্ঞান ভবন। ১৯৯৫-৯৬ সনের দুটি শ্রেণি কক্ষকে একটি স্থায়ী মঞ্চসহ ছয়শ জন দর্শকের আসন সংবলিত মিনি অডিটরিয়ামে রূপান্তরিত হয়। ১৯৯৫ সনে কলেজ গেইট নির্মিত হয়। ১৯৯৫-৯৬ সনে কলেজ পুকুরের দক্ষিণ পার্শ্বের একটি টিনশেড ঘরে ক্যান্টিন স্থানান্তর হয়। কলেজের পুকুরের দক্ষিণ পাড়ে একটি অস্থায়ী মসজিদ নির্মাণ করা হয়।